সার্চ করুন

বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২০

ইহুদি ও খ্রিস্টান ধর্মের পার্থক্য

  Admin       বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২০
এই দুটি ধর্মই আব্রাহামিক ধর্ম। খ্রিস্ট ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা যিশু খ্রিস্ট নিজেও(যিশুর মাতা মেরীর সূত্রে) জাতিতে একজন ইহুদি ছিলেন। দুটিই একেশ্বরবাদী ধর্ম এবং জেরুজালেম দুটি ধর্মেরই পবিত্র একটি স্থান। এই লেখাটির মাধ্যমে আপনাদের কাছে এই দুই ধর্মের পার্থক্য তুলে ধরবো-

একত্ববাদঃ সৃষ্টিকর্তাকে একজন মনে করা হয়
ত্রিত্ববাদঃ একমাত্র সৃষ্টিকর্তার তিনটি রূপের কথা ভাবা হয়। 
মেসিয়াহ বলতে একজন সৎ রাজাকে বুঝানো হয়

মেসিয়াহ বলতে এমন সত্ত্বাকে বুঝানো হয় যিনি সবার পাপের জন্য উৎসর্গ করেছেন, ঈশ্বর।

অতীতের কোন পাপ নেই, সবার পাপের হিসাব প্রথম থেকেই শুরু হয়।
আদম এবং ঈভের সময় থেকে মানুষের পাপের হিসেব শুরু
তোরাহ লিখিত এবং মৌখিক

তোরাহ শুধুই লিখিত রূপে আছে

মুসার দশটি আজ্ঞা স্বর্গীয়, মানতেই হবে মুসার আজ্ঞা মানার বাধ্যবাধকতা আমাদের নেই

সব ভালো মানুষ স্বর্গে যাবে

শুধু খ্রিস্টানরা যাবে

ইহুদিরা ঈশ্বরের বেছে নেয়া জাতি

আলাদা করে ইহুদি জাতির কোন গুরুত্ব নেই


(তথ্যগুলো jewsforjudaism.org নামে একটি ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করা) 

এছাড়া বাইবেলের নিউ টেস্টামেন্টের কোন গুরুত্ব ইহুদিদের কাছে নেই, যিশু ইহুদিদের মত অনুযায়ী একজন সাধারণ ইহুদি রাবাই ছাড়া কিছুই ছিলেন না তার, জন্মের অলৌককতাও তারা বিশ্বাস করে না। সৃষ্টিকর্তাকে দুই ধর্মের মানুষেরাই ইয়েহওয়েহ নামে ডাকে। কোশের খাবার, হানাকাহ, উপাসনা পদ্ধতি সহ আরো নানা পার্থক্য রয়েছে। আরো পার্থক্য চোখে পড়লে নিচের কমেন্ট বক্সে মন্তব্য করে জানান। 
ইহুদিদের বিশ্বাস সম্পর্কে ডেভিড আব্রাহামের(answersingenesis.org তে লেখাটা পাবেন) একটি উদ্ধৃতি দিয়ে শেষ করি-

"Deny the Trinity; there is only one God; Jesus is not the Son of God or the Messiah; the Holy Spirit is not a person"

logoblog

এই লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদঃ ইহুদি ও খ্রিস্টান ধর্মের পার্থক্য

পূর্বের পোস্ট
« Prev Post
পরের পোস্ট
Next Post »

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

লেখাটি যদি পড়ে থাকেন, তাহলে আপনার মন্তব্য প্রত্যাশা করছি। সমালোচনা, পরামর্শ কিংবা, প্রাসঙ্গিক যেকোন মত প্রকাশকে আমরা স্বাগত জানাই।